সাহায্য করুন

মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার এবং মাদকাসক্তি

নেশগ্রস্থকে সাহায্য করুন 

আপনি পুনর্বাসন করতে পছন্দ করেন কিনা,
স্বনির্ভর প্রোগ্রামগুলির উপর নির্ভর করে, 
থেরাপি গ্রহণ করুন, বা স্ব-নির্দেশিত চিকিত্সা 
পদ্ধতি গ্রহণ করুন, সমর্থন অপরিহার্য। মাদকাসক্তি
থেকে মুক্ত হওয়া অনেক সহজ যখন আপনি
মানুষ আপনি উত্সাহ, সান্ত্বনা, এবং নির্দেশিকা
জন্য নিচু করতে পারেন

সাপোর্ট করবেঃ

  • পরিবারের সদস্যগণ
  • বন্ধু
  • থেরাপিস্ট বা পরামর্শদাতা
  • অন্যান্য আসক্ত পুনরুদ্ধার
  • স্বাস্থ্য সেবা প্রদানকারী
  • আপনার বিশ্বাস সম্প্রদায় থেকে মানুষ

ড্রাগ আসক্তি এবং মানসিক স্বাস্থ্যের সঙ্গে ব্রেনের সম্পর্ক

বৈজ্ঞানিক গবেষণা মতে ড্রাগ আসক্তি একটি মস্তিষ্কের রোগ।. যদিও প্রাথমিক অবস্থায় স্বেচ্ছায় ড্রাগ ব্যবহার শুরু হলেও একবার আসক্ত হয়ে পরলে এর ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করা লক্ষণীয়ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ইমেজিং গবেষনায় কিছুকিছু আসক্ত ব্যক্তির মস্তিষ্কে সুনির্দিষ্ট অস্বাভাবিকতা পরিলক্ষিত হয়েছে, যা সবার ক্ষেত্রে দেখা যায়না। কিভাবে ড্রাগ জিন এক্সপ্রেশন ও মস্তিষ্কের গঠনকে প্রভাবিত করে এবং কিভাবে এই উপাদানগুলি মানুষের আচরণ প্রভাবিত করে –এ বিষয়ে সাম্প্রতিক গবেষণা আমাদের জ্ঞান বৃদ্ধি করেছে। ওষুধের অপব্যবহার এবং মানসিক অসুস্থতার মধ্যে সম্পর্ক নির্ধারনে এবং বংশগতি, বয়স, ও অন্যান্য বিষয় যা আসক্তির প্রতি দুর্বলতা বাড়িয়ে দেয়- এসব বিষয়ে গবেষণা নতুন নতুন দিক উন্মোচন করছে।

মানুষের মস্তিস্ক বিস্ময়কর একটি অঙ্গ এবং এর গঠন খুব জটিল। এটা গঠিত হয়েছে বিলিয়ন বিলিয়ন নিউরোন নামক স্নায়ু কোষের সমন্বয়ে- যেগুলো পারস্পরিক যোগাযোগের মাধ্যমে শরীরের স্বাভাবিক কাজকর্মের জন্য একযোগে কাজ করে। এটি মেমরি এবং লার্নিং, ইন্দ্রিয় (শ্রবণশক্তি, দৃষ্টিশক্তি, গন্ধ, স্বাদ, স্পর্শ) এবং আবেগ নিয়ন্ত্রণ করে। এটি শরীরের অন্যান্য অংশ যেমন পেশী, অঙ্গ, এবং রক্তনালীসমূহ নিয়ন্ত্রণ করে।

বিভিন্ন ইন্দ্রিয়ের মাধ্যমে মস্তিষ্কে তথ্য সঞ্চালন হয়। যা কিছু শোনা হয়, অনুভূত হয়, আস্বাদিত হয়, দেখা হয় বা গন্ধ পাওয়া যায় তা শরীরের উপর বা শরীরের ভেতরের রিসেপ্টর দ্বারা সনাক্ত করা হয় এবং সেন্সোরি নিউরনের মাধ্যমে মস্তিষ্কে পাঠানো হয়। ইন্দ্রিয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য দিয়ে কি করা হবে তা এবং কিভাবে মোটর নিউরোন এর মাধ্যমে বার্তা পাঠিয়ে শরীর সাড়া দেবে তা মস্তিষ্ক সিদ্ধান্ত নেয় । উদাহরণস্বরূপ, যদি একজন ব্যক্তি গরম কিছুর উপর তার হাত রাখে, স্পর্শ ইন্দ্রিয় তাপ সম্পর্কে মস্তিষ্কে খবর পাঠায় এবং হাত সরিয়ে নেওয়ার জন্য মস্তিষ্ক হাতের মাংসপেশীর কাছে বার্তা পাঠায়।

বিভিন্ন ধরনের নিউরোনের মত রয়েছে বিভিন্ন ধরনের রাসায়নিক নিউরোট্র্রান্সমিটার। মানসিক অসুস্থতা অধ্যয়নরত গবেষকরা বিশ্বাস করেন যে এইসব রাসায়নিক পদার্থের ভারসাম্যহীনতা – বিশেষ করে মস্তিষ্ক সার্কিটের ভারসাম্যহীনতা- অনেক মানসিক অসুস্থতার জন্য দায়ী। এই রাসায়নিক ভারসাম্যহীনতার জন্য স্নায়ু থেকে স্নায়ুতে বার্তা পরিবহণ করা কঠিন হয়ে পড়ে এবং মস্তিষ্কের স্বাভাবিক কার্যক্রম বিঘ্নিত হয়। ফলে স্নায়ু থেকে প্রাপ্ত বার্তা সম্পরকে মস্তিষ্ক “ভ্রান্ত” ধারনা করতে পারে এবং শরীরে সঠিক প্রতিক্রিয়া বার্তা পাঠাতে ব্যর্থ হতে পারে। ফলশ্রুতিতে, একজন ব্যক্তির মানসিক অসুস্থতার লক্ষণ বিকশিত হতে পারে। গবেষকরা এও বিশ্বাস করেন যে, মস্তিষ্কের বিভিন্ন অংশের আকার বা আকৃতি পরিবর্তনও কিছু মানসিক অসুস্থতার জন্য দায়ী হতে পারে।

 

যদি আপনি সন্দেহ করেন যে একটি বন্ধু বা পরিবারের সদস্য একটি ড্রাগ সমস্যা আছে

Speak up. Talk to the person about your concerns, and offer your help and support, without being judgmental. The earlier addiction is treated, the better. Don’t wait for your loved one to hit bottom! Be prepared for excuses and denial by listing specific examples of your loved one’s behavior that has you worried.

Take care of yourself. Don’t get so caught up in someone else’s drug problem that you neglect your own needs. Make sure you have people you can talk to and lean on for support. And stay safe. Don’t put yourself in dangerous situations.

Avoid self-blame. You can support a person with a substance abuse problem and encourage treatment, but you can’t force an addict to change. You can’t control your loved one’s decisions. Let the person accept responsibility for his or her actions, an essential step along the way to recovery for drug addiction.

But Don’t

Attempt to punish, threaten, bribe, or preach.

Avoid emotional appeals that may only increase feelings of guilt and the compulsion to use drugs.

Cover up or make excuses for the drug abuser, or shield them from the negative consequences of their behavior.

Take over their responsibilities, leaving them with no sense of importance or dignity.

Hide or throw out drugs.

Argue with the person when they are high.

Take drugs with the drug abuser.

Feel guilty or responsible for another’s behavior.

Let’s work together

“Everyone has inside of him a piece of good news. The good news is that you don’t know how great you can be! How much you can love! What you can accomplish! And what your potential is!”

Follow us